কবিতা সম্ভার

নারীর জীবন কবিতা

নারীর জীবন
লেখিকা:মেহরিমা সাবনাম অদ্রি
ওহে নারী, তুমি জন্মালে আজ
এ কালো সন্ধেক্ষনি।
একটু পরেই আধাঁরে বিলিন হবে
       তোমার মুখোশখানি।
নারী! কেনো জন্মালে তুমি?
তুমি কি জানো?
      কতোই না স্বার্থপর, এই গোটা পৃথিবী।
কত শতো শতো মুখোশে ডাকা
         হিংস্রদের হাতছানি,
চোঁখে কত হিংস্রতা তাদের
         আজ থেকেই তা দেখবে তুমি।
নারী, তুমি বড়ই ত্যাগময়ী
   জন্মেছো আজ এ বাড়ি,
কাল যাবে কার  না কার বাড়ি!
জন্ম দিবে, গোটা পুরুষধারী।
    তাও কিনা?!!
দশ মাস দশ দিনেরই গর্ভাধারী।
আহা নারী!! কি ভাগ্য তোমার?
   তারাই একদিন খুবলে খেতে চাইবে তোমাকে,
একেমন?  পুরুষ জাতি?
ও নারী এ জগতে তোমার!
কতোই না তোমার বাঁধা -বিপওি।
নারী তুমি বড়ই ক্ষমতাময়ী
     নিজে না খেয়ে কিভাবে দাও তুমি?
পরের মুখে নিজের অন্না বলী।
নারী তুমি বড়ই মহান
তাইতো পুরুষদের দিয়েছো তুমি,
ভাই,স্বামী, সন্তানের সম্মান।
নারী!!তুমি এতোটা ক্ষমাময়ী?
দুনিয়ার এতো অত্যাচার?
এতো কষ্ট, অবহেলা,
এতো না পাওয়া,
এতো ধর্ষনতা
এতো না করে মানহানী?
ওগো নারী, কিভাবে এতো এতো ক্ষমা হামেশাই করো তুমি!!!
নারী তুমি বড়ই আত্নত্যাগী
কিন্তু তোমার বিপরীতে বড়ই স্বার্থময় এ গোটা পৃথিবী।
কিছুই পেলে না তুমি!
দোলনা থেকে মৃত্যু অব্দি।
শুধুই দিয়ে গেলে তুমি।
আচ্ছা! এই পৃথিবী কি, আধো কোনোদিন, তোমার এই ঋন,
শোধ করতে পারবে কি?
নাকি পৃথিবীকে এসবের জবাব হিসেবে, করেই যাচ্ছো ঋনি।
এরকম নিত্য নতুন তথ্য জানতে HelpBangla.com নিয়মিত ভিজিট করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button